news

২০২০ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত

২০২০ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিতঃ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস থেকে শিক্ষক -শিক্ষার্থীদের কে রক্ষা করতে ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এপ্রিল এর প্রথম সপ্তাহে ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার নতুন সময়সূচী জানানো হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষ আগামী ১ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল । শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পরীক্ষার সময়সূচী ও প্রকাশ করা হয়েছিল। ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা ১ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত করার জন্য সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল।

২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় মোট সাড়ে ১৩ লাখ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার কথা ছিল।

এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে প্রাক-প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে । এবং এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র বিতরণ ২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এ বছরের উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। আগামী এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে পরীক্ষাটির পরবর্তী তারিখ জানানো হবে।

রোববার দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

১ এপ্রিল থেকে ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল। ৪ মে পর্যন্ত এইচএসসির তত্ত্বীয় এবং ৫ থেকে ১৩ মের মধ্যে সব ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ করার সূচি নির্ধারিত ছিল।

এর আগে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে শনিবার এইচএসসি পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণ কার্যক্রম ২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করে শিক্ষা বোর্ডগুলো। পরীক্ষার্থীদের বাড়িতে অবস্থান করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, সব শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের নিয়ে বৃহস্পতিবার সভা করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটি। ওই সভায় এবারের এইচএসসি পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন নিয়ে আজ আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এলো।

এ বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রায় ১৩ লাখ শিক্ষার্থী অংশ নেবে। এর মধ্যে সাড়ে ১০ লাখ নিয়মিত।

এর আগে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ১৬ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, আমরা এখনই এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানাচ্ছি না। সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে কাছাকাছি সময়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। সেই আলোকে পরীক্ষা শুরুর এক সপ্তাহ আগে পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *